মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

জাতীয় মহিলা সংস্হা


জাতীয় মহিলা সংস্থা, চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখা কার্যালয়ের পরিচিতি

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়
জাতীয় মহিলা সংস্থা
জেলা শাখা, চুয়াডাঙ্গা ।

 

  

  

 

  

  

 

  

  

 

  

  

    











নারী উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় জাতীয় মহিলা সংস্থা

 

মহান মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা বাংলাদেশের নারীদের জন্য নতুন যুগের সূচনা করে। 1971-এর মহান মুক্তিযুদ্ধে বাংলার মায়েরা-মেয়েরা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত ছিলেন এবং বলিষ্ঠ ভুমিকা রেখেছেন। স্বাধীনতা যুদ্ধে ক্ষতিগ্রস্থ নারীদের পূর্নবাসন ও ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে 1972 সনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্তৃক “নারী পুর্নবাসন বোর্ড” গঠনের মাধ্যমে শুরু হয় মহিলাদের উন্নয়নের প্রাতিষ্ঠানিক যাত্রা। 1974 সালে জাতিসংঘ কর্তৃক 8মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি লাভ করে। মেক্সিকোতে 1975 সালে জুলাই মাসে অনুষ্টিত প্রথম বিশ্ব নারী সম্মেলনে 1976-1985 সালকে “নারী দশক” হিসেবে ঘোষনার প্রেক্ষাপটে আর্ন্তজাতিক পরিমন্ডেলে নারী অধিকারের বিষয়গুলি উন্নয়নের কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসে। তৎপ্রেক্ষিতে একটি মহিলা সংস্থার রুপরেখা প্রণীত হয়, যা 1976 সালের 17 ফেব্রুয়ারী “জাতীয় মহিলা সংস্থা” নামে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। পরবর্তীতে সংস্থার কার্যক্রমকে অধিকতর ফলপ্রসু ও জোরদার করার লক্ষ্যে 1991 সালের 4ঠা মে তারিখে 9 নং আইন বলে জাতীয় মহিলা সংস্থা একটি সংবিধিবন্ধ প্রতিষ্ঠানে রুপ নেয়। বর্তমানে দেশের 64টি জেলা ও 50টি উপজেলার ন্যায় চুয়াডাঙ্গা জেলা ব্যাপি সংস্থার কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।

 

জাতীয় মহিলা সংস্থা, চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখায় কর্মরত কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণের তালিকাঃ

 

ক্রমিক নংকর্মকর্তা/ কর্মচারীর নামপদবীছবি

 

01
 

 

মোছাঃ নুরুন্নাহার কাকলী

 

চেয়ারম্যান
 

 

02
 

 

মোহাঃ হাফিজুর রহমান
 

 

কো-অর্ডিনেটর
 

 

03
 

 

মোঃ ছুরুত জামাল
 

 

ফিল্ড কো-অর্ডিনেটর
 

 

04
 

 

রওশন আরা
 

 

ট্রেড প্রশিক্ষক
 

 

05
 

 

মোঃ খায়রুল কবির
 

 

কম্পিউটার প্রশিক্ষক
 

 

06
 

 

মোছাঃ কামরুন নাহার
 

 

সহকারী কম্পিউটার প্রশিক্ষক
 

 

07
 

 

মোঃ রফিকুল এসলাম
 

 

এম এল এস এস
 

 

জাতীয় মহিলা সংস্তার প্রধান কার্যবলী ও উদ্দেশ্য

 

  • Ø জাতীয় জীবনের সকল ক্ষেত্রে মহিলাদের সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কাজ করা;
  • Ø মহিলাদের জন্য কারিগরি ও বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা;
  • Ø অর্থনৈতিক স্বাবলম্বিতা অর্জনে মহিলাদের সহায়তা করা;
  • Ø মহিলাদের আইনগত অধিকার রক্ষার্থে সাহায্যে করা;
  • Ø পরিবার কল্যাণমূলক ব্যবস্থাদি গ্রহণে মহিলাদের উদ্বুদ্ধ করা;
  • Ø মহিলাদের কল্যাণে নিয়োজিত সরকারী ও বেসরকারী, দেশী-বিদেশী প্রতিষ্ঠানের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করা;
  • Ø জাতীয় উন্নয়ন কর্মকান্ডে মহিলাদের সম্পৃক্ত করার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করা;
  • Ø সমবায় সমিতি গঠন ও কুঠির শিল্প স্থাপনে মহিলাদের উৎসাহিত করা;
  • Ø ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে মহিলাদের অংশগ্রহণের সুযোগ সৃষ্ঠি করা;
  • Ø মহিলাদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সম্মেলন, সেমিনার ও কর্মশালার ব্যবস্থা করা;
  • Ø উপরোক্ত কার্যবলী সম্পাদনের জন্য প্রয়োজনীয় যে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করা;

 


সংস্থার কার্যক্রম ও কর্মসূচী

 

Ø অক্ষরজ্ঞান দান প্রশিক্ষণ ও সচেতনতামূলক কর্মসূচীঃ জাতীয় মহিলা সংস্থার 64টি জেলা ও 50টি উপজেলা শাখার ন্যায় চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখাতেও নিরক্ষর মহিলাদের অক্ষরজ্ঞান দানও, স্বাস্থ্য, পুষ্টি, পরিবার কল্যাণ, আইনগত অধিকার, পরিবেশ সংরক্ষণ, নৈতিক ও সামাজিক বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়াসহ সচেতনতামূলক কর্মকান্ড পরিচালনা করা হয় ।

 

Ø দক্ষতা উন্নয়নমূলক প্রশিক্ষণঃ সমাজের অনগ্রসর, অবহেলিত, বেকার মহিলাদের আত্ম-কর্মসংস্থান ও আয়বর্ধক কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্যে জাতীয় মহিলা সংস্থার 64টি জেলা ও 50টি উপজেলা শাখার ন্যায় চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখাতেও অত্র জেলার মহিলাদের দর্জিবিজ্ঞান ও সুচসুতার কাজ ও দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। এই প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষণরত প্রত্যেক প্রশিক্ষণার্থীকে দৈনিক হাজিরা হিসেবে হাজিরা প্রতি 20 টাকা করে ভাতা প্রদান করা হয়। প্রশিক্ষনের মেয়াদ 4মাস, কোন প্রশিক্ষণ ফি নেওয়া হয় না। ব্যাচ 2টি, আসন সংখ্যা প্রতি ব্যাচে 15 জন মোট 30জন। উক্ত প্রশিক্ষন কোর্সে ভর্তির সময় ডিসেম্বর, এপ্রিল ও আগষ্ট মাসে ভর্তি ফরম বিতরন করা হয়।

 

দক্ষতা উন্নয়ন মূলক প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের প্রশিক্ষণকালীন ছবি।

 

Ø মহিলাদের আইটি প্রশিক্ষণ কর্মসূচীঃ বর্তমান মহাজোট সরকার ঘোষিত ভিশন 2021 অর্জন এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে দক্ষ নারী কর্মী গড়ে তোলার জন্য প্রতিটি জেলার ন্যায় জাতীয় মহিলা সংস্থা, চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখাতেও মহিলাদের আইটি প্রশিক্ষণ কর্মসূচী চালু হয়েছে। কোর্সের মেয়াদ 4মাস। প্রতি ব্যাচে 2টি শিফট-এ 40জন মহিলাকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয় । কোর্স ফি 500 টাকা । এই প্রশিক্ষনে কোন ভাতা প্রদান করা হয় না । ভর্তির সময় প্রতিবছর ফেব্রুয়ারী, জুন ও অক্টোবর এই তিন মাসে ভর্তি করা হয় । বিস্তারিত জানতে জাতীয় মহিলা সংস্থা, জেলা শাখা চুয়াডাঙ্গা কার্যালয় যোগাযোগ করতে হবে ।

 

মহিলাদের IT প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ও প্রশিক্ষর্ণার্থীদের ছবি।

 

Ø স্ব-কর্ম সহায়ক ঋণ কার্যক্রমঃ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ তহবিল হতে প্রাপ্ত অর্থ তহবিল (আবর্তক)দ্বারা পরিচালিত স্ব-কর্ম সহায়ক ঋণ কার্যক্রমের আওতায় দরিদ্র, বেকার ও উদ্যোগী মহিলাদের আত্ম-কর্মসংস্থানের জন্য দেশের 64টি জেলা ও 28টি উপজেলা শাখার ন্যায় জাতীয় মহিলা সংস্থা, চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার মাধ্যমে অর্থ উপার্জনকারী বিভিন্ন কর্মসূচী বাস্তবায়িত হচ্ছে । আর্থিক সংগতিসম্পন্ন লেখাপড়া জানা একজন ব্যক্তির জামিনদারিতে এককভাবে 3,000/= টাকা থেকে 5,000/= টাকা এবং দলগতভাবে একটি দলকে 25,000/= টাক পর্যন্ত ঋণ প্রদান করা হয় । উক্ত ঋণ পেতে ও বিস্তারিত জানতে জাতীয় মহিলা সংস্থা, জেলা শাখা চুয়াডাঙ্গা কার্যলয় যোগাযোগ করতে হবে ।

 

স্ব-কর্ম সহয়ক ঋণ কার্যক্রমের কর্মশালা।

 

Ø মহিলাদের আত্ম-কর্মসংস্থানের জন্য ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রমঃ মহিলাদের আত্ম-কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে ক্ষুদ্রঋণ পরিচালনার জন্য জাতীয় মহিলা সংস্থার অনুকুলে রাজস্বখাত হতে টাকা বরাদ্দকৃত (আবর্তক) পাওয়া যায় । প্রাপ্ত অর্থ ঘূর্ণায়মান আকারে সংস্থার 48টি উপজেলা শাখা ও 58টি সদর উপজেলা শাখা নিয়ে মোট 106টি মহিলা সংস্থা, শাখার ন্যায় চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার মাধ্যমে মাথাপিছু 5,000/= (পাঁচ হাজার) টাকা থেকে 15,000/= (পনের হাজার) টাকা ঋণ বিতরণ করা হয় উক্ত ঋণ পেতে ও বিস্তারিত জানতে জাতীয় মহিলা সংস্থা, জেলা শাখা চুয়াডাঙ্গা কার্যালয় যোগাযোগ করতে হবে ।

 

মহিলাদের আত্ন-কর্মসংস্থানের জন্য ক্ষুদ্র ঋণ কার্যক্রম ঋণ বিতরণ করেছেন মানোনীয় সংসদ সদস্য চুয়াডাঙ্গা-1, জনাব সোলাইমান হক জোয়াদ্র্দার ছেলুন মহোদয়।

 

Ø নারী নির্যতন প্রতিরোধ কার্যক্রমঃ নারী নির্যতন প্রতিরোধ ও নারীর আইনগত অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে জাতীয় মহিলা সংস্থার কেন্দ্রীয় কার্যলয়সহ বাংলাদেশের প্রতিটি শাখার ন্যায় চুয়াডাঙ্গা শাখাতেও “নারী নির্যতন প্রতিরোধ সেল” রয়েছে । নির্যতিত মহিলারা এ সেলের মাধ্যমে বিনা খরচে আইনগত সহায়তা পেয়ে থাকেন। সাধারণত পারিবারিক কলহ, নির্যতন, খোরপোষ অনাদায়, দ্বিতীয় বিবাহ ইত্যাদি বিষয়ে অভিযোগ পাওয়া যায় । প্রাপ্ত আবেদনের মধ্যে অমীমাংসিত অভিযোগগুলো আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের জাতীয় আইননগত সহায়তা প্রদান সংস্থায় প্রেরণ করা হয় ।

 

আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ-2012 উপলক্ষ্যে মানববন্ধন।

 

Ø নারী ও শিশু পাচার এবং য়ৌতুক ও বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ কার্যক্রমঃ নারী ও শিশু পাচার এবং য়ৌতুক ও বাল্য বিবাহ প্রতিরোধকল্পে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে নিয়মিত কার্যক্রম হিসেবে জাতীয় মহিলা সংস্থার জেলা ও উপজেলা শাখার ন্যায় চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখাতেও মহিলাদের নিয়ে নিয়মিত উঠোন বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় ।

 

নারী ও শিশু পাচার এবং য়ৌতুক ও বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ বিষয়ক আলোচনা সভা।

 

 

 

ছবি